সড়ক দুর্ঘটনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নীতিমালার গেজেট প্রকাশ করতে নির্দেশ Reviewed by Momizat on . কিছু পরিমার্জনসহ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ ও সহায়তাকারীর সুরক্ষা প্রদান নীতিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ কিছু পরিমার্জনসহ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ ও সহায়তাকারীর সুরক্ষা প্রদান নীতিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ Rating: 0
You Are Here: Home » আইন ও বিচার » সড়ক দুর্ঘটনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নীতিমালার গেজেট প্রকাশ করতে নির্দেশ

সড়ক দুর্ঘটনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নীতিমালার গেজেট প্রকাশ করতে নির্দেশ

সড়ক দুর্ঘটনায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নীতিমালার গেজেট প্রকাশ করতে নির্দেশ

কিছু পরিমার্জনসহ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির জরুরি স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ ও সহায়তাকারীর সুরক্ষা প্রদান নীতিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। রায়ের অনুলিপি পাওয়ার দুই মাসের মধ্যে ওই গেজেট করতে স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি ফরিদ আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার এই রায় দেন।

২০১৮ সালে করা ওই নীতিমালার দুটি অংশে পর্যবেক্ষণ দিয়ে উচ্চ আদালত তা নীতিমালায় সংযুক্ত করতেও বলেছেন।

আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী রাশনা ইমাম, আনিতা গাজী ইসলাম ও শারমিন আক্তার। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।

রায়ের পর আইনজীবী শারমিন আক্তার প্রথম আলোকে বলেন, হাইকোর্ট এর আগে রুল দিয়েছিলেন। রুলে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের জরুরি চিকিৎসাসেবা দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছিল। আদালত রুল যথাযথ ঘোষণা করে রায় দিয়েছেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ২০১৮ সালে করা ওই নীতিমালার দুটি অংশে পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন হাইকোর্ট, যা নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করে গেজেট আকারে প্রকাশ করতে বলা হয়েছে বলে জানান এই আইনজীবী।

২০১৬ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি গুরুতর আহত ব্যক্তিদের জরুরি চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য দেশের সব হাসপাতালকে নির্দেশ দিয়ে রুল দেন হাইকোর্ট। মানবাধিকার সংগঠন বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) ও সৈয়দ সাইফুদ্দিন কামাল নামের এক ব্যক্তি জনস্বার্থে রিট আবেদনটি করেন। সে সময় ব্লাস্ট জানায়, জরুরি চিকিৎসাসেবা দিতে বিভিন্ন হাসপাতালের অস্বীকৃতি জানানোর পরিপ্রেক্ষিতে ওই রিট আবেদনটি করা হয়েছে। রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে আদালত ওই আদেশ দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী সারা হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোতাহার হোসেন সাজু।

আদেশে বলা হয়, জাতীয় সড়ক নিরাপত্তাসংক্রান্ত কর্মপরিকল্পনা ২০১৪-১৬ অনুসারে রাষ্ট্রের সব হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে জরুরি চিকিৎসাসেবার ক্ষেত্রে কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সে বিষয়ে একটি প্রতিবেদন আগামী তিন মাসের মধ্যে আদালতে জমা দিতে হবে। একই সঙ্গে জরুরি চিকিৎসাসেবা প্রদান এবং চিকিৎসা পেতে বাধা পেলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি কোথায় অভিযোগ করবেন, সে বিষয়ে নীতিমালা তৈরি ও এই বিষয়ে গণমাধ্যমে সচেতনতা সৃষ্টিতে নির্দেশ দেন আদালত। স্বাস্থ্য এবং পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে এ নির্দেশ দেওয়া হয়। আদেশের পাশাপাশি আদালত রুল দেন। সড়ক দুর্ঘটনায় মর্মান্তিকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত ব্যক্তির জরুরি চিকিৎসাসেবা কেন দেওয়া হবে না, সেটাও বিবাদীদের কাছে আদালত জানতে চান।

About The Author

Number of Entries : 480

Leave a Comment

মুক্তগাছা ভবন, বাড়ি নং -১৩, ব্লক -বি, প্রধান সড়ক, নবোদয় হাউজিং, আদাবর, ঢাকা-১২০৭; সম্পাদক ও প্রকাশক; আলহাজ্ব মোঃ সাদিকুর রহমান বকুল ; জাতীয় দৈনিক আজকের নতুন খবর;

Scroll to top