এসেনসিওতে বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা Reviewed by Momizat on . নিজের গোলটা তুলে নেওয়ার পর এসেনসিও। উয়েফা নেশনস লিগে কাল রাতে ক্রোয়েশিয়াকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে স্পেন। গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টদের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় ব্য নিজের গোলটা তুলে নেওয়ার পর এসেনসিও। উয়েফা নেশনস লিগে কাল রাতে ক্রোয়েশিয়াকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে স্পেন। গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টদের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় ব্য Rating: 0
You Are Here: Home » খেলা » এসেনসিওতে বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা

এসেনসিওতে বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা

নিজের গোলটা তুলে নেওয়ার পর এসেনসিও।

উয়েফা নেশনস লিগে কাল রাতে ক্রোয়েশিয়াকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে স্পেন। গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টদের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় ব্যবধানের হার। স্পেনের হয়ে দারুণ খেলেছেন মার্কো এসেনসিও। ছয় গোলের মধ্যে পাঁচটিতেই প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ অবদান রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ তারকার।

অবিশ্বাস্য রাত? সে তো বটেই। দুই দলের জন্যই কাল রাতটা ছিল স্রেফ অবিশ্বাস্য। গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট ক্রোয়েশিয়া যেমন এমন হার কল্পনাও করেনি তেমনি স্পেনও কী ঘুণাক্ষরেও ভেবেছিল, এত বড় জয় ধরা দেবে?

জয়ের ব্যবধানটা ৬-০। ভুল পড়েননি। স্পেনের কাছে বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা এত বড় ব্যবধানেই হেরেছে! বিশ্বকাপ ফাইনালের পর উয়েফা নেশনস লিগে এটিই ছিল ক্রোয়াটদের প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ। আর এই ম্যাচেই তাঁদের দেখতে হলো নিজেদের ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ব্যবধানের হার! এর আগে কখনোই চার গোলের চেয়ে বেশি ব্যবধানে হারেনি ক্রোয়েশিয়া। সবচেয়ে বেশি গোল হজমের রেকর্ড ছিল পাঁচটি—২০০৯ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে (৫-১)।

রামোসকে দিয়েও গোল করিয়েছেন এসেনসিও। দুজনের উল্লাস। 

কিন্তু কাল উয়েফা নেশনস কাপে ঘরের মাঠে ক্রোয়েশিয়াকে নতুন ‘ইতিহাস গড়তে’ বাধ্য করেছে স্পেন। আর সেখানে ক্রোয়াটদের এই নিঃশর্ত আত্মসমর্পণের দলিল বলতে গেলে মার্কো এসেনসিও একাই লিখেছেন। এ দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে কাল রাতটি যদি কারও জন্য সত্যিকার অর্থেই অবিশ্বাস্য হয়ে থাকে তবে সেটি এই স্প্যানিশ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের বেলায় প্রযোজ্য। স্পেনের ছয় গোলের মধ্যে তাঁর প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ভূমিকা রয়েছে পাঁচটি গোলেই!

২২ বছর বয়সী এই স্প্যানিশ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার নিজে এক গোল করেছেন পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন আরও তিন গোল। আর একটি গোলও তাঁর নামের পাশে যোগ হতো। যদি না বুলেট গতির শট গোলরক্ষক কালিনিচের গায়ে লেগে জালে জড়াত! কালিনিচের গায়ে লাগায় ওটা হয়েছে আত্মঘাতী। রদ্রিগো, সার্জিও রামোস আর ইসকোকে দিয়ে বাকি তিনটি গোল করিয়েছেন এসেনসিওই।

About The Author

Number of Entries : 2694

Leave a Comment

মুক্তগাছা ভবন, বাড়ি নং -১৩, ব্লক -বি, প্রধান সড়ক, নবোদয় হাউজিং, আদাবর, ঢাকা-১২০৭; সম্পাদক ও প্রকাশক; আলহাজ্ব মোঃ সাদিকুর রহমান বকুল ; জাতীয় দৈনিক আজকের নতুন খবর;

Scroll to top