তামিম-সৌম্যর আউট যে কারণে ‘‌বিশেষ কিছু’ Reviewed by Momizat on . ডাউন দ্য উইকেট গিয়ে স্টাম্পিংয়ের শিকার তামিম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি।  ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে নিজেদ ডাউন দ্য উইকেট গিয়ে স্টাম্পিংয়ের শিকার তামিম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি।  ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে নিজেদ Rating: 0
You Are Here: Home » খেলা » তামিম-সৌম্যর আউট যে কারণে ‘‌বিশেষ কিছু’

তামিম-সৌম্যর আউট যে কারণে ‘‌বিশেষ কিছু’

ডাউন দ্য উইকেট গিয়ে স্টাম্পিংয়ের শিকার তামিম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে নিজেদের প্রথম বলে আউট হন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। এমন আউট ক্রিকেট দেখেছে কতবার?

প্রথম বলেই আউট, মানে ‘গোল্ডেন ডাক’। সেটিও আবার দলের দুই ওপেনার! এমন ঘটনা কতবার দেখেছেন?

‘গোল্ড ফিশ মেমোরি’ না হলে সর্বশেষ ঘটনাটা একনিমেষেই মনে পড়ার কথা। এই তো ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেই। প্রথম ম্যাচের প্রথম ইনিংসে (বাংলাদেশের) প্রথম বলেই ফিরেছিলেন তামিম ইকবাল। সেটি ছিল টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে দলীয় ইনিংসের প্রথম বলেই স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ার রেকর্ডও।

তামিম আউট হওয়ার দুই বল পরই সৌম্য সরকার বোল্ড। নিজের প্রথম বলেই আউট হয়ে বিরল এক রেকর্ডের জন্ম দেন এই ওপেনার। টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো কোনো দলীয় ইনিংসের প্রথম ওভারে নিজেদের প্রথম বলেই ফিরে যাওয়ার রেকর্ড গড়েন এ দুই ওপেনার। ক্রিকেটের তিন সংস্করণ মিলিয়েও এমন ঘটনা খুব বেশিবার ঘটেনি।

কতবার ঘটেছে, সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজেছেন স্টিভেন লিঞ্চ। ক্রিকইনফোতে তাঁর নিয়মিত কলাম আস্ক স্টিভেন-এ এক পাঠকের জিজ্ঞাসার জবাবে লিঞ্চ জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দুই ওপেনারেরই গোল্ডেন ডাক হওয়ার ঘটনা এত দীর্ঘ ইতিহাসে ঘটেছে মাত্র ৯ বার।

বোল্ড হয়ে ফিরছেন সৌম্য সরকার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি।

প্রথম বলেই দুই ওপেনারের ফিরে যাওয়ার প্রথম নজির ১৮৮৮ সালে। ওল্ড ট্রাফোর্ডে সেটি ছিল ক্রিকেট ইতিহাসের মাত্র ৩০ নম্বর টেস্ট। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে নিজেদের প্রথম বলেই আউট হয়েছিলেন দুই ওপেনার অ্যালেক বানারম্যান ও ম্যাকডোনেল।

টেস্টে এমন ঘটনা আর আছে মাত্র ৫টি। প্রথমটির ৪৫ বছর পর দ্বিতীয় নজির দেখেছে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট। সেবার ম্যাচের প্রথম ইনিংসেই (ইংল্যান্ডেরও প্রথম ইনিংস) নিজেদের প্রথম বলে ফিরে যান হার্বার্ট সাটক্লিফ ও এডি পেন্টের। এরপর একই ভাগ্য মেনে নিতে হয়েছে কনরাড হান্ট-রোহান কানহাই (ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১৯৫৮ পোর্ট অব স্পেন টেস্ট), মহসিন খান-মুদাসসর নজর (১৯৮২, হেডিংলি টেস্ট), মারভান আতাপাত্তু-সনাৎ জয়াসুরিয়া (২০০০, ক্যান্ডি টেস্ট) ও টম লাথাম-মার্টিন গাপটিল (২০১৬, সেঞ্চুরিয়ন টেস্ট) ওপেনিং জুটিকে।

ওয়ানডে এমনটা ঘটেছে মাত্র দুবার। প্রথম নজির ২০০৬ সালে জর্জটাউনে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে চতুর্থ ম্যাচে ৩৩৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ফিদেল এডয়ার্ডসের করা ইনিংসের প্রথম ওভারেই ফিরে যান জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনার পিয়েত রিঙ্কি ও টেরি ডাফিন। ৯ বছর পর দেখা গেল দ্বিতীয় নজির—২০১৫ বিশ্বকাপে ডানেডিনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরে ব্যাটিংয়ে নেমে নিজেদের প্রথম বলেই ফিরে যান শ্রীলঙ্কার লাহিরু থিরিমান্নে ও তিলকারত্নে দিলশান।

টি-টোয়েন্টির সেই খাতাটাই খুললেন তামিম ও সৌম্য।

About The Author

Number of Entries : 2048

Leave a Comment

মুক্তগাছা ভবন, বাড়ি নং -১৩, ব্লক -বি, প্রধান সড়ক, নবোদয় হাউজিং, আদাবর, ঢাকা-১২০৭; সম্পাদক ও প্রকাশক; আলহাজ্ব মোঃ সাদিকুর রহমান বকুল ; জাতীয় দৈনিক আজকের নতুন খবর;

Scroll to top