বড় হচ্ছে জুতার বাজার Reviewed by Momizat on . রুচির পরিবর্তন ও মানের বিষয়ে সচেতনতা তৈরি হওয়ায় ব্র্যান্ডের জুতার প্রতি ঝুঁকছে দেশের মানুষ। সে জন্য ব্র্যান্ডের জুতার বিক্রি প্রতিবছর গড়ে ১২-১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে রুচির পরিবর্তন ও মানের বিষয়ে সচেতনতা তৈরি হওয়ায় ব্র্যান্ডের জুতার প্রতি ঝুঁকছে দেশের মানুষ। সে জন্য ব্র্যান্ডের জুতার বিক্রি প্রতিবছর গড়ে ১২-১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে Rating: 0
You Are Here: Home » অর্থনীতি » বড় হচ্ছে জুতার বাজার

বড় হচ্ছে জুতার বাজার

বড় হচ্ছে জুতার বাজার

রুচির পরিবর্তন ও মানের বিষয়ে সচেতনতা তৈরি হওয়ায় ব্র্যান্ডের জুতার প্রতি ঝুঁকছে দেশের মানুষ। সে জন্য ব্র্যান্ডের জুতার বিক্রি প্রতিবছর গড়ে ১২-১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে। তাই নতুন নতুন প্রতিষ্ঠান এ ব্যবসায় নামছে। তবে ব্যবসা বাড়লেও সারা বছর যে পরিমাণ জুতা বিক্রি হয়, তার বড় অংশ এখনো নন ব্র্যান্ডের।
ব্যবসায়ীরা বলছেন, দেশে জুতার বাজার বিরাট। অনেক প্রতিষ্ঠান থাকায় প্রতিযোগিতাও বেশি। তারপরও ব্র্যান্ডের জুতার ব্যবসা বাড়ানোর আরও সুযোগ আছে। প্রতিষ্ঠানগুলোও বিনিয়োগ করছে। তবে ঢাকা ও ঢাকার বাইরে দোকান ভাড়া বেশি হওয়ার কারণে বিক্রয়কেন্দ্র বাড়ানো মুশকিল হয়ে যাচ্ছে। এটিই ব্র্যান্ডের জুতার ব্যবসায় বর্তমানে প্রধান চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দেশে জুতার বাজার বছরে প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকার। এর মধ্যে বাজারের ৩০ শতাংশ ব্র্যান্ডের জুতার দখলে। বাকিটা নন-ব্র্যান্ড, আঞ্চলিক ব্র্যান্ড ও আমদানি করা জুতার দখলে। আগে জুতার ব্যবসা উৎসবকেন্দ্রিক থাকলেও বর্তমানে সারা বছর কম বেশি হয়। তারপরও সারা বছরের বিক্রির ২৫-৩০ শতাংশ হয়ে থাকে ঈদুল ফিতরে।
ব্র্যান্ডের জুতার ব্যবসায় শীর্ষস্থান দখল করে রেখেছে বাটা। বৈশ্বিক জুতার এই ব্র্যান্ড বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে ১৯৬২ সালে। বর্তমানে তাদের দুটি কারখানা রয়েছে। একটি টঙ্গীতে, অন্যটি ধামরাইয়ে। এ দুটি কারখানায় দৈনিক ১ লাখ ৬০ হাজার জোড়া জুতা তৈরির সক্ষমতা রয়েছে। সারা দেশে তাদের ২৪৮টি নিজস্ব বিক্রয়কেন্দ্র আছে। দেড় হাজারের বেশি ডিলার শপও আছে।
বাটার বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৭ সালে তারা স্থানীয় বাজারে ৯০২ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি করে। আর ২০১৮ সালের প্রথম নয় মাসে ৭১৪ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি করে তারা। আর চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে তাদের বিক্রি দাঁড়িয়েছে ১৭৭ কোটি টাকা।
ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১ হাজার ২০০ নতুন নকশার জুতা নিয়ে এসেছে বাটা-এমন তথ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপক জুবায়ের ইসলাম বলেন, সারা বছর বাটার যে বিক্রি হয়, তার ২০-২২ শতাংশ ঈদে হয়। তাই সব ঈদেই নিত্যনতুন নকশার জুতা আনা বাজারে আসে।
জুবায়ের ইসলাম আরও বলেন, টঙ্গী ও ধামরাইয়ের দুই কারখানায় বাটার জুতা উৎপাদন হলেও দেশের বাইরে থেকে নাইকি, অ্যাডিডাসসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের জুতা আমদানি করা হয়। সব মিলিয়ে প্রায় ৪০ শতাংশ জুতা বিদেশ থেকে আমদানি করে বাটা। সারা দেশে বিক্রয়কেন্দ্র থাকলেও শুধু ঢাকা শহরেই বাটার মোট বিক্রির ৬০-৬৫ শতাংশ হয়ে থাকে।

About The Author

Number of Entries : 3254

Leave a Comment

মুক্তগাছা ভবন, বাড়ি নং -১৩, ব্লক -বি, প্রধান সড়ক, নবোদয় হাউজিং, আদাবর, ঢাকা-১২০৭; সম্পাদক ও প্রকাশক; আলহাজ্ব মোঃ সাদিকুর রহমান বকুল ; জাতীয় দৈনিক আজকের নতুন খবর;

Scroll to top