জঙ্গিদের মুখে হাসি ফাঁসির রায় শুনেও ! , নিজস্ব প্রতিবেদক,নতুনখবর | Reviewed by Momizat on . ঢাকার গুলশানের যে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছে অনেকখানি, সেই হামলা মামলার রায়ে ফাঁসির আদেশ আসার পরও আসামিদের মুখে ছিল হাসি। বর্বরোচিত হলি আর্টিজান হ ঢাকার গুলশানের যে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছে অনেকখানি, সেই হামলা মামলার রায়ে ফাঁসির আদেশ আসার পরও আসামিদের মুখে ছিল হাসি। বর্বরোচিত হলি আর্টিজান হ Rating: 0
You Are Here: Home » জাতীয় » জঙ্গিদের মুখে হাসি ফাঁসির রায় শুনেও ! , নিজস্ব প্রতিবেদক,নতুনখবর |

জঙ্গিদের মুখে হাসি ফাঁসির রায় শুনেও ! , নিজস্ব প্রতিবেদক,নতুনখবর |

ঢাকার গুলশানের যে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছে অনেকখানি, সেই হামলা মামলার রায়ে ফাঁসির আদেশ আসার পরও আসামিদের মুখে ছিল হাসি।

বর্বরোচিত হলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় ঘোষণার পর বুধবার দুপুরে আদালতে উপস্থিত থাকা আসামিদের এমন হাসিমুখ দেখা গেছে।

ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইন্যুনালের বিচারক রায় ঘোষণা করার পর জঙ্গিদের কেউ কেউ এই বিচার মানেন না বলে চিৎকার করে ওঠেন। কেউ আবার ফাঁসির রায়কে নিজেদের বিজয়ের লক্ষণ হিসেবে আঙুল দেখান।

আলোচিত ওই হামলার ঘটনায় হওয়া মামলার রায়ে ফাঁসির দণ্ড পেয়েছে সাত আসামি। একজনকে দেয়া হয়েছে খালাস। রায়ে ফাঁসির খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন সাধারণ জনগণ। সরকার সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

রায় ঘোষণার আগে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে জঙ্গিদের আদালতে আনা হয়। এসময় পুরো আদালত এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়।

দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে রায় পড়া শুরু করেন বিচারক। এসময় এজলাসে উপস্থিত ছিলেন নৃশংস এ হামলা মামলার জীবিত ৮ আসামি।এদের মধ্যে সাতজনকে ফাঁসি ও একজনকে খালাস দেয় আদালত।

এসময় জঙ্গিদের বেশ কয়েকজনের মাথা ঢাকা ছিল মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের (ইসলামিক স্টেট) পতাকা সম্বলিত প্রতীক দিয়ে। এ নিয়ে আদালতের ভেতরে ও বাইরে বেশ আলোচনা হয়। এ বিষয়ে তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- হামলার মূল সমন্বয়ক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক তামিম চৌধুরীর সহযোগী আসলাম হোসেন ওরফে রাশেদ ওরফে আবু জাররা ওরফে র‌্যাশ, ঘটনায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী নব্য জেএমবি নেতা হাদিসুর রহমান সাগর, জঙ্গি রাকিবুল হাসান রিগ্যান, জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব ওরফে রাজীব গান্ধী, হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী আব্দুস সবুর খান (হাসান) ওরফে সোহেল মাহফুজ, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ।

একইসঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। আর খালাস দেয়া হয় মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজানকে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস দেয়া হয়েছে বলে জানান আদালত।

মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান খালাস পাওয়ার পর বলেন,‘আল্লাহ আমাকে খালাস করেছেন।আমি অনেক বার বিচারককে বলেছি, আমি সেই মিজান না। আমাকে বিনা দোষে এত দিন জেলে রাখছে।’

বিচারক এজলাসে ওঠে রায় পড়ার সময় জঙ্গিরা চুপচাপ দাঁড়িয়ে তা শুনেন। এ সময় তাদের চোখে মুখে কিছুটা আতঙ্কের ছাপ দেখা গেলেও রায় ঘোষণার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তারা নির্দোষ বলে বার বার চিৎকার করতে থাকেন।

জঙ্গিরা কেউ কেউ ‘আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর’ বলে ওঠেন। এসময় তারা আদালতে উপস্থিত আইনজীবী ও গণমাধ্যম কর্মীদের বলে, ‘আমাদের বিজয় খুব শিগগিরই।’

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত হাদিসুর রহমান রায়ের পর বলেন, ‘আমি তো ছিলামই না। কোন কিছুই জানি না।’ আর রাকিবুল ইসলাম ওরফে রিগান নামে এক জঙ্গি বলেন, ‘সব ভুয়া, আমি নাকি আইএসের সদস্য। শুনে হাসি পায়।’

রায় শেষের কিছুক্ষণের মধ্যেই এজলাস থেকে জঙ্গিদের বের করে প্রিজন ভ্যানে করে কারাগারের উদ্দেশে রওনা হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এসময় জঙ্গিদের বহনকারী প্রিজন ভ্যানের সামনে র‌্যাবের সদস্যরা মোটরসাইকেলে কর্টন করে নিয়ে যায়।

প্রিজন ভ্যানে তোলার পর জঙ্গিরা সবাই জোরে জোরে চিৎকার করতে দেখা যায়। এসময় ভ্যানের ভিতর থেকে একজনকে চিৎকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করতে শোনা যায়।

নতুনখবর/তুম

About The Author

Number of Entries : 570

Leave a Comment

মুক্তগাছা ভবন, বাড়ি নং -১৩, ব্লক -বি, প্রধান সড়ক, নবোদয় হাউজিং, আদাবর, ঢাকা-১২০৭; সম্পাদক ও প্রকাশক; আলহাজ্ব মোঃ সাদিকুর রহমান বকুল ; জাতীয় দৈনিক আজকের নতুন খবর;

Scroll to top